স্বাগতম : খিদিরপুর কলেজ


নরসিংদী জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে মনোহরদী উপজেলার খিদিরপুরে আধুনিক শিক্ষার সুবিন্যস্ত পরিমন্ডলে অত্যন্ত সুন্দর সুশৃঙ্খল ও দৃষ্টি নন্দন পরিবেশে ঐতিহ্যবাহী খিদিরপুর কলেজ অবস্থিত। কলেজের তিন কিলোমিটারের মধ্যে রয়েছে আটটি ফিডার স্কুল। দানকৃত ও খরিদা সম্পত্তি মিলে মোট ৪.৭৩ একর জমির উপর কলেজের একটি ত্রিতল ভবন, একটি দ্বিতল ভবন, একটি আধাপাকা টিনশেড, দুইটি হোস্টেল, চার পাড় বাধানো সারিবদ্ধ নারিকেল গাছ বেষ্টিত ব্যবহার উপযোগী একটি পুকুর, মনোমুগ্ধকর পরিকল্পিত বাগান, বাজার সংলগ্ন জমিতে কমার্শিয়াল কমপ্লেক্স (প্রস্তাবিত সুপার মার্কেট) আছে। পাঠদান ও পাবলিক পরীক্ষা গ্রহণের জন্য আছে মান সম্মত আসবাবপত্রসহ বৈদ্যুতিক সুযোগ সুবিধা সমৃদ্ধ পর্যাপ্ত শ্রেণি কক্ষ। প্রতি ফ্লোরে ওয়াটার সাপ্লাইসহ একাধিক neat and clean toilet/bath room রয়েছে। বিজ্ঞানের প্রতি বিষয়ে পৃথক বিজ্ঞানাগার, যন্ত্রপাতি, শিক্ষা উপকরণসহ তিনজন প্রশিক্ষক (প্রদর্শক) আছেন। পাঠ্য বই, শিক্ষা, সংস্কৃতি ও বিজ্ঞান মনষ্ক রেফারেন্স বই, দৈনিক সংবাদ পত্র সমৃদ্ধ কলেজ লাইব্রেরী প্রতিদিন সকাল থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত ছাত্র-শিক্ষকদের জন্য একজন লাইব্রেরীয়ানের তত্ত্বাবধানে খোলা থাকে। সোমবার ছাড়া সপ্তাহে পাঁচ দিন ছাত্রছাত্রীদের কলেজ ইউনিফর্ম পরা বাধ্যতা মূলক। সোমবার ব্যতিত সপ্তাহে পাঁচদিন এসেম্বলী হয়। এসেম্বলীতে জাতীয় সংগীতের সাথে জাতীয় পতাকা, কলেজ সংগীতের সাথে কলেজ পতাকা উত্তোলন করা হয়। প্রার্থনা ও শপধ পাঠ করানো হয়, সুনাগরিক হিসেবে দেশ, সমাজ ও জাতি গঠনের মানষিকতা সৃস্টির লক্ষে গঠন মূলক বক্তব্য রাখা হয় এবং কিছু শারীরিক ব্যায়াম শিখানো হয়। কলেজে টিউটোরিয়াল ও সেমিস্টার পদ্ধতিতে পাঠ দান করা হয় এবং প্রতি সেমিস্টার পরীক্ষা শেষে আনুষ্ঠানিক ভাবে ফল প্রকাশ ও পুরুষ্কার বিতরণ করা হয়। প্রতি বছর শিক্ষা সফর ও বার্ষিক ক্রিড়া অনুষ্ঠিত হয় এবং সবগুলো জাতীয় দিবস আড়ম্ভর ভাবে উদযাপন করা হয়। কলেজ শিক্ষার্থী, শিক্ষক এবং অভিভাবকদের সমন্বয়ে নিয়মিত কাউন্সিলিং, অভিভাবক সমাবেশ ও হোস্টেল/ হোম ভিজিট করা হয়। খিরিপুর কলেজ সন্ত্রাস, রাজনীতি এবং ধুমপান ও নকল মুক্ত একটি উচ্চ শিক্ষার সিঁড়ি। প্রতি বছর এ কলেজের বিপুল সংখ্যক ছাত্রছাত্রী, মেডিকেল, ইঞ্জিনিয়ারিং, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশ বিদেশের নামকরা বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উচ্চশিক্ষার সুযোগ পায়। এলাকাবাসী ও গভার্নিং বডি কলেজের প্রতি বেশ আন্তরিক। ২০১৪-২০১৫ শিক্ষা বর্ষ থেকে কলেজে ডিগ্রী কোর্স চালু হয়েছে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায়-” কলেজের ঐতিহ্য বৃদ্ধি পাবে, শিক্ষার প্রসার ঘটিয়ে অনার্স কোর্স চালু হবে“- এ প্রত্যাশা সর্বমহলের।

সভাপতির বানী


বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম

জাতীয় উন্নয়ন ও অগ্রগতির প্রথম সোপান হল শিক্ষা। শিক্ষার মাধ্যমেই তৈরি হয় সৎ, দেশপ্রেমিক ও মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন সুনাগরিক। শিক্ষা ছাড়া মানুষের মধ্যে দেশপ্রেম,মানবতা ও নৈতিক মূল্যবোধের বিকাশ ঘটানো সম্ভব নয়। একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে দেশকে আধুনিক ও ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপে গড়ার ক্ষেত্রে যু বিস্তারিত

সভাপতির নাম

সভাপতি

প্রধানশিক্ষকের বানী


বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।    
শিক্ষাই আলো। কেবলমাত্র শিক্ষাই অজ্ঞতার অন্ধকারকে দুর করে। সত্যিকার শিক্ষা শুধুমাত্র ডিগ্রি অর্জনের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় বরং তার চেয়েও বেশি কিছু। শিক্ষার উদ্দেশ্য হল ব্যক্তিকে আলোকিত করা এবং ব্যক্তির সক্ষমতা বৃদ্ধি করা। ইহা শিশুর সুপ্ত প্রতিভাকে জাগ্রত করে । একজন ব্যক্তি শিক্ষার সাহায্যে অস্তিত্ বিস্তারিত

প্রধানশিক্ষকের নাম

প্রধানশিক্ষক

এক নজরে ...


মোট ছাত্র/ছাত্রী সংখ্যা 0 মোট শিক্ষক সংখ্যা 0
মোট কর্মচারী 0 মোট ভবন সংখ্যা 5
জে,এস,সি তে পাশের হার 80% এস,এ,সি তে পাশের হার 96%

শিক্ষক মন্ডলী


নোটিশ বোর্ড

আমাদের তথ্য

শিক্ষায়তনিক

প্রাতিষ্ঠানিক

ভর্তি

অনলাইন লাইব্রেরী

ডাউনলোড সেন্টার

 
Flag Counter